ঢাকা: মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর, ২০১৭

তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, সমাজতন্ত্রের পতাকা হাতেই জাতীয় প্রয়োজনে জঙ্গিসন্ত্রাস মোকাবেলায় রাজনৈতিক ঐক্যের নীতি গ্রহণ করেছে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ। জাতির ক্রান্তিকালে দিশেহারা বা বিভ্রান্ত না হয়ে, দলের লাভ-ক্ষতির চেয়ে সংকট মোকাবিলাকে বিবেচনায় নিয়ে বৃহত্তর রাজনৈতিক ঐক্য গড়েছে জাসদ।

৩১ অক্টোবর জাসদের ৪৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীতেকেন্দ্রীয় শহিদ মিনার পাদদেশে আয়োজিত জনসমাবেশে হাজারেরও অধিক জনতা ও নেতাকর্মীর উদ্দেশ্যে তিনি একথা বলেন।

মুক্তিযোদ্ধা ইনু বলেন, যতদিন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, অসাম্প্রদায়িকতা ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় এবং শোষণ-বৈষম্য অবসানে দোদুল্যমানতা বা ভীরুতার বিপরীতে সাহস দেখানোর প্রশ্ন থাকবে, ততদিন জাসদের চাহিদা থাকবে। ডান-বাম বা জাসদ পরিত্যাগকারীরা যতই অপবাদ দিকনা কেন, জাতির প্রতি দায়িত্ব পালন থেকে জাসদকর্মীদের দূরে সরাতে পারেনি। বাংলাদেশের আত্মাকে ধারণ করে বলেই জাতীয় রাজনীতিতে জাসদের উপস্থিতি অনিবার্য।

যারা জাসদের সমালোচনা করেন তারা জাসদকেই তাদের পাশে চান উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, জাসদ জঙ্গিদমনে আপোষহীন, বৈষম্য কমাতে অটল, দলবাজি বন্ধে বলিষ্ঠ, দুর্নীতি বন্ধে কঠোর, উন্নয়নের সুফল ঘরে ঘরে পৌঁছাতে সমাজতন্ত্রের ধারক। জাসদ সময়ের সঙ্গে হাঁটে, দেশ-জনগণের পক্ষে থাকে, সমাজ বদলের পতাকা হাতে থাকে সামনে সবার।

জঙ্গি ধ্বংস করতে মহাজোট সরকার আর বৈষম্য-দারিদ্র্য দূর করতে দরকার জাসদ ও সমাজতন্ত্র, বলেন জাসদ সভাপতি।

এসময় বিএনপিনেত্রী খালেদ জিয়া প্রসংগে ইনু বলেন, ইতিহাস ধামাচাপা, খুনীরক্ষা, রাজাকার-জঙ্গির সঙ্গে ঐক্য আর আগুনসন্ত্রাসের চার অপরাধের দায়ভার নিয়ে খালেদা জিয়া এখনো চক্রান্ত ছাড়েননি, রাজকার ও জঙ্গির সম্পর্ক ছাড়েনি, তাই খালেদার কাছে দেশ মানে রাজাকারের কাছে ইজারা। তার চোখের জলে সামরিকতন্ত্রের ময়লা যায় না, তাকে (খালেদা জিয়াকে) ৩০ লক্ষ শহীদ, গণহত্যা, জাতির পিতা, সংবিধানের চারনীতি মানতে হবে, রাজাকার-যুদ্ধাপরাধী-জঙ্গি ছাড়তে হবে।

জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপিসহনেতৃবৃন্দের মধ্যে এ্যাড. রবিউল আলম, অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন, মীর হোসাইন আখতার, নূরুল আখতার, নাদের চৌধুরী, বীরমুক্তিযোদ্ধা শফিউদ্দিন মোল্লা প্রমূখ সভায় বক্তব্য রাখেন।

এর আগে সকালে জাসদ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের কর্ণেল তাহের মিলনায়তনে দলের বীর শহীদদের স¥ৃতিস্মারকে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু। দলীয় শীর্ষনেতারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।