যুদ্ধের মধ্যেই যথাসময়ে নির্বাচন করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ (একাংশ) সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেন, আইন অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠানের পথে কোনো বাধা না থাকা সত্ত্বেও বিএনপি-জামায়াত সহায়ক সরকার, সংলাপ ইত্যাদি ধোয়া তুলে জল ঘোলা করে নির্বাচন বানচালে লিপ্ত।
বিএনপি-জামায়াতের নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র রুখতে হবে। বিএনপি-জামায়াতের অশান্তি নির্মূল করার যুদ্ধের মধ্যেই যথাসময়ে নির্বাচন করতে হবে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে বিএনপি-জামায়াত-জঙ্গিবাদীদের নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র মোকাবেলা এবং ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা-নির্যাতনকারীদের কঠোর শাস্তির দাবিতে গণমিছিলের পূর্বে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশকে শান্তি-উন্নয়ন-মুক্তিযুদ্ধের পথে রাখতে হলে বিএনপি-জামায়াত জঙ্গিবাদীদের শুধু ক্ষমতার বাইরেই নয়, রাজনীতির মাঠ থেকেও বিদায় করতে হবে। ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা, ঘর-বাড়িতে আগুন দেয়া, মন্দির-প্রতিমা ভেঙে অশান্তি তৈরি, জলঘোলা করার ষড়যন্ত্র চলছে। ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলাকারী যেই হোক তাদের প্রতিরোধ, দমন, কঠোর শাস্তি দিতে হবে।

ইনু বলেন, জঙ্গিবাদী মৌলবাদী-সাম্প্রদায়িক শক্তির ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত মোকাবেলায় তৃণমূলে ১৪ দল মহাজোটকে সক্রিয় ভূমিকা রাখতে হবে।

জঙ্গিবাদ বিরোধী লড়াইয়ের মধ্যে উন্নয়নের সুফল ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে সুশাসন ও সমাজতন্ত্রের সংগ্রাম এগিয়ে নিতে হবে।

ইনু জাসদ কর্মী-সমর্থকদের ভোটের জন্য এবং সুশাসন ও সমাজতন্ত্রের সংগ্রামে সমর্থনের জন্যও জনগণের ঘরে ঘরে যাবার আহ্বান জানান। ঢাকা মহানগর জাসদের সমন্বয়ক মীর হোসাইন আখতারের সভাপতিত্বে জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার, স্থায়ী কমিটির সদস্য প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন, অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান শওকত, নুরুল আখতার, নাদের চৌধুরী, সহ-সভাপতি শফি উদ্দিন মোল্লা, শহীদুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান চুন্নু, নইমুল আহসান জুয়েল উপস্থিত ছিলেন।

News Sourcing : www.jagonews24.com